শনিবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
শনিবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
শনিবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ইং

ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুরের তারাবুনিয়া স্টেশন বাজার রক্ষায় ৯০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ 

ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুরের তারাবুনিয়া স্টেশন বাজার রক্ষায় ৯০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ 
শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার উত্তর তারাবুনিয়া চেয়ারম্যান ষ্টেশন বাজার রক্ষায় ৯০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হকশামীম এমপি।
ভাঙ্গন শুরু হওয়ার একদিন পরেই এই বরাদ্দ মঞ্জুর করেন। গত২৯ জুন দুপুরে পদ্মানদীর আকর্শিক ভাঙ্গনে ১৬ টি দোকান ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এর মধ্যে ৫ টি দোকান সম্পুর্নরুপে নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে। বিষয়টি জানার পরপরই শরীয়তপুর -২ আসনের সংসদ সদস্য পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম ভাঙ্গন প্রতিরোধের জন্য জিও ব্যাগ ফেলার জন্য ৩ টি প্যাকেজে ৯০ লক্ষ টাকা মঞ্জুর করেন।
উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইউনুস সরকার বলেন, উত্তর তারাবুনিয়া চেয়ারম্যান ষ্টেশন বাজার হঠাৎ করেই নদীভাঙ্গন শুরু হয়। নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যায় চেয়ারম্যান ষ্টেশন বাজারের বেশ কিছু দোকান। আমি সংবাদ শোনার সাথে সাথেই  পানিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের মাননীয়  উপমন্ত্রী  এ কে এম এনামুল হক শামীম, এমপি মহোদয়কে ফোন করে নদীভাঙ্গার কথা অবহিত করি এবং সাথে সাথেই  মাননীয় উপ-মন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশে শরীয়তপুর পানিউন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৈশলী আহসান হাবিব ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শনে আসেন।
মাননীয় উপমন্ত্রী  ভাঙ্গন  শুরু হওয়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যেই জিও ব্যাগের ডাম্পিং করে নদী ভাঙ্গনরোধের  ব্যবস্থার গ্রহন জন্য ৯০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করেন। আজ বুধবার সকাল  চেয়ারম্যান ষ্টেশন বাজারের নদীর তীর রক্ষায় ৩টি পয়েন্টে জিওব্যাগ ডাম্পিংয়ের কাজ শুরু হয়েছে। তাতক্ষণিক নদীভাঙ্গন রোধের ব্যবস্থা নেওয়ায়   মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও পানি সম্পদ  উপমন্ত্রী মহোদয়ের প্রতি উত্তর তারা বুনিয়াবাসী র পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানাই।
শরীয়তপুর  জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডর  নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান হা্বিব বলেন গত ২৯ জুন দুপুর ১ টার দিকে পদ্মার পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে  তারাবুনিয়া স্টেশন বাজারের ৩ টি স্থানে ব্যাপক ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। এ এলাকার সংসদ সদস্য, পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একে এম  এনামুল হক শামীম সাহেব এর নির্দেশে  আমরা ভাঙ্গন এলাকা পরির্দশ করে চাহিদা পত্র দেয়ার সাথে সাথে  ৩ টি প্যকেজের জন্য ৯০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করেন।
ভেদরগঞ্জে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ বলেন, ভাঙ্গনে  সংবাদ শোনার  ২৪ ঘন্টা ব্যবধানে  মাননীয় পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম মহোদ্বয়ের নির্দেশে  জিও ব্যাগ ফেলার কাজ শুরু হয়েছে। ক্ষতি গ্রস্থদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে। আপর দিকে স্থানীয় চেয়ারম্যান  আলহাজ্ব ইউনুস সরকার ব্যাক্তিগত ভাবে ৫বস্তা চাল বিতরন  করেছেন।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য